হোম / ব্যবসায়

News
এ সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৭ টাকা ৯২ পয়সা।গ্রামীণফোনের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) ইয়েন্স বেকার বলেন, 'প্রথম প্রান্তিকে গ্রামীণফোনের প্রবৃদ্ধি কমেছে। আমাদের শেয়ারহোল্ডার ও গ্রাহকদের জন্য আরও বেশি মানসম্মত সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার লক্ষ্যে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক নির্মাণ ও বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়নে আমাদের বিনিয়োগ অব্যাহত থাকবে।' গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, প্রথম প্রান্তিকে নেটওয়ার্ক উন্নয়নে ৪০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। প্রথম প্রান্তিকে ইন্টারনেট থেকে রাজস্ব গত বছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে ২৪.৬ শতাংশ।গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইয়াসির আজমান বলেন, '২০২০ সালের প্রথম প্রান্তিকে আমরা ধারাবাহিক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছি। গ্রামীণফোন জানিয়েছে, ২০২০ সালের প্রথম প্রান্তিকে ৩ হাজার ৬২০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় হয়েছে। আগের বছরের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (২০২০ সালের জানুয়ারি-মার্চ) আয়, মুনাফা, গ্রাহক, ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়লেও প্রতিকূল নিয়ন্ত্রণমূলক পরিবেশে ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি কমেছে বলে জানিয়েছে পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত বেসরকারি মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন।বুধবার (২২ এপ্রিল) সংবাদমাধ্যমে পাঠানো ২০২০ সালের জানুয়ারি-মার্চ সময়ের আর্থিক বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়েছে